Nationalnews.Video  

 

 
   

Facebook LikeBox  

   
Today119
Yesterday299
Total179057

Monday, 24 November 2014 08:49

Who Is Online

Guests : 10 guests online Members : No members online
   
   

Login Form  

   

প্রচ্ছদ

পারমাণবিক পরীক্ষা চালানোর হুমকি উত্তর কোরিয়ার

Details
আন্তর্জাতিক সংবাদ,ন্যাশনালনিউজ: উত্তর কোরিয়ার মানবাধিকার পরিস্থিতি তদন্তে জাতিসংঘের তোড়জোড়ের জবাবে পরমাণু পরীক্ষা চালানোর হুমকি দিয়েছে পিয়ংইয়ং। মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধের বিষয়টি তদন্তের আহ্বান জানিয়ে সমপ্রতি পাস হওয়া জাতিসংঘ প্রস্তাবনার পেছনে যুক্তরাষ্ট্রের হাত আছে বলে বৃহস্পতিবার অভিযোগ করেছে উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়।

আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে (আইসিসি) উত্তর কোরিয়ার মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিষয়টি তদন্তের জন্য নিরাপত্তা পরিষদের কাছে আহ্বান জানিয়ে মঙ্গলবার ওই প্রস্তাব পাস করে জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিটি। এরই প্রতিক্রিয়ায় নতুন করে পরমাণু পরীক্ষা চালানোর হুমকি দিয়েছে উত্তর কোরিয়া। দেশটি এর আগে ২০০৬, ২০০৯ এবং ২০১৩ সালে পরমাণু পরীক্ষা চালায়।

উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক স্থাপনায় নতুন করে তৎপরতার ছবি স্যাটেলাইটে দেখা যাওয়ায় এ হুমকি সৃষ্টি হয়েছে। উপগ্রহ থেকে নেয়া ছবিতে দেখা উত্তর কোরিয়ার প্রধান পরমাণু স্থাপনা ইয়ংবিয়নে পুনঃপ্রক্রিয়াকরণ প্ল্যান্ট থেকে ধোঁয়া উড়তে দেখা গেছে।উত্তর কোরিয়া পরমাণু বোমা তৈরিতে ব্যবহারযোগ্য প্লুটোনিয়াম প্রক্রিয়াকরণের জন্য স্থাপনা চালু করছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

অবৈধভাবে বসবাসের অভিযোগে ৩১ বিদেশি আটক

Details

জাতীয় সংবাদ,ন্যাশনালনিউজ: রাজধানীর উত্তরা, গুলশান ও রামপুরা এলাকা থেকে বৃহস্পতিবার ৩১ বিদেশীকে গ্রেফতার করা হয়। শুক্রবার মিন্টো রোডে গ্রেফতার বিদেশী নাগরিকদের মিডিয়ার সামনে হাজির করা হয়। পুলিশ জানায়, এসব বিদেশী নাগরিকদের বিরুদ্ধে অবৈধভাবে বসবাস করার অভিযোগ রয়েছে। তাদের কেউ বৈধ কোনো কাগজপত্র দেখাতে পারেনি। অবৈধভাবে বসবাসের অভিযোগে এই ৩১ বিদেশী নাগরিককে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ।

গোয়েন্দা কর্মকর্তারা বলছেন, অবৈধভাবে বসবাসকারী বিদেশী নাগরিক ব্যবসা-বাণিজ্যের আড়ালে অবৈধ কর্মকাণ্ড করছে। বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তার জন্য এরা হুমকি। ট্যুরিস্ট ভিসায় বাংলাদেশে এসে অন্তত ১২ হাজার বিদেশী নাগরিক বসবাস করছে। তারা সবাই এখন আত্মগোপন করেছে। ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) পক্ষে নগরবাসীকে আহ্বান জানানো হয়েছে, বৈধ কাগজপত্র ছাড়া কোনো বিদেশী নাগরিককে কেউ যেন বাসা ভাড়া না দেয়। পুলিশের বিশেষ শাখার একটি সূত্র জানায়, বিদেশী নাগরিকদের অবৈধভাবে বসবাসের বিষয়টি জানতে পেরে রাজধানীর উত্তরা, গুলশান ও রামপুরা এলাকার কিছু বাড়ির মালিককে চিঠি দেয়া হয়েছিল। সম্প্রতি ডিবি পুলিশের হাতে ১৪৭টি বাসার একটি তালিকা আসে। ওই তালিকা অনুযায়ী বৃহস্পতিবার ডিবি ও সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশের একাধিক টিম যৌথভাবে অভিযানে নামে। অভিযানে ৩১ বিদেশী নাগরিককে গ্রেফতার করা হয়।

গোয়েন্দা সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বের ১৫টি দেশের প্রায় ১২ হাজারের বেশি বিদেশী নাগরিক বাংলাদেশে বেড়াতে এসে আত্মগোপন করেছে। ধারণা করা হয়- এদের বেশিরভাগ অপরাধী। কারও বিরুদ্ধে হুন্ডি, জাল ডলার, মাদক পাচারের অভিযোগও রয়েছে। বাংলাদেশে অবস্থানকারী নাগরিকদের মধ্যে ভারত, ক্যামেরুন, পাকিস্তান, ফিলিপাইন, নাইজেরিয়া, ঘানা, কঙ্গো, লিবিয়া, ইরাক, আফগানিস্তান, আলজিরিয়া, সুদান, তাঞ্জানিয়া, উগান্ডা ও শ্রীলংকার নাগরিকই বেশি। এসব বিদেশী নাগরিকের পছন্দের এলাকা হচ্ছে ঢাকার গুলশান, বনানী, রামপুরা, নিকুঞ্জ ও উত্তরা। জানতে চাইলে ঢাকা মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার (ডিসি) শেখ নাজমুল আলম যুগান্তরকে বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে ঢাকার বিভিন্ন স্থানে অবস্থানরত বিদেশী নাগরিকরা খুন, প্রতারণা, মাদক ব্যবসাসহ নানা অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িত তথ্য পাওয়া যায়।

ডিসি শেখ নাজমুল আলম বলেন, গ্রেফতার বিদেশীরা ট্যুরিস্ট ভিসায় এদেশে আসার পর আর ফিরে যায়নি। এদের ভিসার মেয়াদও শেষ হয়ে গেছে। ধারণা করা হচ্ছে- নিজ দেশে কোনো ধরনের অপরাধ করে এ দেশে আত্মগোপন করে আছে। ডিবি পুলিশ জানায়, অভিযানে গ্রেফতারকৃতদের মধ্য নাইজেরীয় নাগরিক ১২, উগান্ডার ৫, ক্যামেরুনের ৫, আইভোরিকোস্টের ২, গাম্বিয়ার ৩ এবং টোগো, মালি, কেনিয়া, মোজাম্বিক ও সেনেগালের একজন করে নাগরিককে গ্রেফতার করা হয়। 

সোনা চোরাচালান অভিযোগে বিমানের ডিজিএমসহ গ্রেফতার ৫

Details
জাতীয় সংবাদ,ন্যাশনালনিউজ: সোনা চোরাচালানে জড়িত থাকার অভিযোগে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের এক উপ মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) ও এক ক্যাপ্টেনসহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। গত মঙ্গলবার রাতে রাজধানীর বিমানবন্দর, উত্তরা ও বসুন্ধরা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়।
তারা হচ্ছেন- বাংলাদেশ বিমানের উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) এমদাদ হোসেন, ক্যাপ্টেন আবু মোহাম্মদ আসলাম শহীদ, শিডিউল ইনচার্জ তোজাম্মেল হোসেন, উত্তরার ফারহান মানি এক্সচেঞ্জের মালিক হারুন অর রশিদ এবং বিমানের ঠিকাদার মাহমুদুল হক পলাশ। বুধবার দুপুরে ঢাকা মহানগর পুলিশের মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়। ডিবির দাবি, চক্রটি দীর্ঘদিন ধরে সোনা চোরাচালান নিয়ন্ত্রণ করে আসছিলো। চক্রের অন্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। 

অন্যদিকে শাহজালাল বিমানবন্দরের গ্রাউন্ড হ্যান্ডেলিংয়ের দায়িত্বে থাকা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের পদস্থ কারও সহযোগিতা ছাড়া এভাবে নিয়মিত সোনা চোরাচালন যে সম্ভব নয়- সে সন্দেহ আগে থেকেই ছিল। শাহজালাল এবং শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে প্রায় প্রতিদিনই সোনার চালান ধরা পড়লেও এই প্রথম গুরুত্বপূর্ণ একাধিক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হলো। এদিকে গ্রেফতারকৃত ৫ জনকে আদালতে হাজির করে গতকাল ১০ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ। আদালত ওই ৫ জনের প্রত্যেকের ৪ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
গোয়েন্দা কর্মকর্তারা জানান, গত ১২ নভেম্বর বাংলাদেশ বিমানের বিজি-০৪৬ ফ্লাইটের কেবিন ক্রু মাজহারুল আফসার ওরফে রাসেলকে ২ কেজি ৬শ গ্রাম স্বর্ণ ও ৬ টি আইপ্যাডসহ আটক করে শুল্ক গোয়েন্দারা। এ বিষয়ে শুল্ক কর্তৃপক্ষ বিমানবন্দর থানায় একটি মামলা করেন। পরে মামলাটি থানা থেকে ডিবি পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে রাসেল ওই নিয়ন্ত্রকদের নাম বলেন। পরে ওই ৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়।

ডিবির উপ কমিশনার (উত্তর) শেখ নাজমুল আলম জানান, গ্রেফতারকৃত মাজহারুল আফসার ওরফে রাসেলকে ৩ দিনের রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। মাজহারুল আফসার জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বিজ্ঞ আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। ওই স্বীকারোক্তিতে সে বিমানবন্দর কেন্দ্রিক স্বর্ণ ও মুদ্রা চোরাচালান চক্রের সাথে জড়িত সদস্যদের সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ ও চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রদান করেন। তার কাছে পাওয়া তথ্য ও তদন্তে প্রাপ্ত অন্য তথ্যাদি যাচাই-বাছাইয়ে হযরত শাহ জালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কেন্দ্রিক চোরাচালান চক্র সম্পর্কে চাঞ্চল্যকর তথ্য বেরিয়ে আসে। এরই প্রেক্ষিতে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

বাংলাদেশে আমার অনেক স্মৃতি রয়েছে : শচীন

Details

ক্রীড়া সংবাদ,ন্যাশনালনিউজবন্ধুর আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে মঙ্গলবার সকালে ঢাকা পৌঁছেন ক্রিকেটের জীবন্ত কিংবদন্তি শচীন টেন্ডুলকার। বিমানবন্দর থেকে হেলিকপ্টারযোগে তিনি চলে যান বন্ধু লুৎফর রহমান বাদলের ক্লাব ‘লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জের’ উৎসভূমি নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে। সেখানে গিয়ে প্রথমেই তিনি শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন।

সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে শচীন বলেন, ‘বাংলাদেশের সঙ্গে আমার অনেক স্মৃতি জড়িয়ে রয়েছে।বাংলাদেশের প্রথম টেস্টে খেলেছিলাম আমি। এখানেই আমি শতকের শতক পূর্ণ করেছি।বাংলাদেশের সঙ্গে জড়িয়ে আমার এমন আরো অনেক স্মৃতি রয়েছে। এখানে আসতে আমাকে আমন্ত্রণ জানানোয় আমার বন্ধু বাদলকে ধন্যবাদ জানাই। ইউনিসেফের শুভেচ্ছা দূত হিসেবে এখানে আমি স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা ও স্যানিটেশনের বিষয়ে কিছু শেখাব। আশা করছি এগুলো তাদের ভালো লাগবে।’

বেশির ভাগ চিকিৎসক কর্মস্থলে উপস্থিত থেকে স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করছে : নাসিম

Details

স্বাস্থ্য সংবাদ,ন্যাশনালনিউজ: স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, বেশির ভাগ চিকিৎসকই কর্মস্থলে উপস্থিত থেকে সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করছেন। তিনি বলেন, কিছুসংখ্যক চিকিৎসক কর্মস্থলে উপস্থিত থাকছেন না, তাদেরকে চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ঢাকায় মাতুয়াইল শিশু ও মাতৃস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের পরিচালনা পর্ষদের সভায় তিনি একথা বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, সরকার সীমিত সম্পদ দিয়ে দরিদ্র ও অবহেলিত মানুষের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করতে চায়। তিনি চিকিৎসকদের এ বিষয়ে সহযোগিতা করার আহ্বান জানান। শিশু ও মাতৃ স্বাস্থ্যসেবায় সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ড তুলে ধরে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, মা ও শিশু স্বাস্থ্যসেবায় বাংলাদেশের অর্জন দক্ষিণ এশিয়া ও অনুন্নত দেশগুলোতে উদাহরণ হিসেবে দেখা হয়। যে কোন অরাজকতা ও নৈরাজ্য মোকাবিলা করে নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী সরকার জনগণের জন্য স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে চায়। সুষম ও দরিদ্রবান্ধব স্বাস্থ্য ব্যবস্থা গড়ে তোলাই সরকারের অন্যতম লক্ষ্য।

মন্ত্রী মাতুয়াইল শিশু ও মাতৃ ইনস্টিটিউটকে ২০০ থেকে ৫০০ শয্যায় উন্নীত করার ঘোষণা দেন। এই স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠানে রোগীদের চিকিৎসায় অত্যাধুনিক সব যন্ত্রপাতি বসানো হবে বলেও তিনি জানান । সভা শেষে প্রতিষ্ঠানে দীর্ঘদিন অস্থায়ী ভিত্তিতে কর্মরত শতাধিক কর্মচারী তাদের চাকরি স্থায়ীকরণের জন্য মন্ত্রীর কাছে দাবি জানালে তিনি এ বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন। অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন হাবিবুর রহমান মোল্লা এমপি, সানজিদা খাতুন এমপি, স্বাস্থ্য সচিব এম এম নিয়াজউদ্দিন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. দীন মো. নুরুল হক, পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক নূর হোসেন তালুকদার এবং শিশু ও মাতৃ স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক ডা. শাহরিয়া তাসনিম।

বাংলাদেশের সব পোশাক কারখানাতেই নিরাপত্তার সমস্যা

Details

বাণিজ্য সংবাদ,ন্যাশনালনিউজ: বাংলাদেশের এগারোশোর বেশি পোশাক কারখানা পরিদর্শন শেষে এর প্রায় সবগুলোতেই নানা ধরণের সমস্যা দেখতে পেয়েছে পশ্চিমা পোশাক ব্রান্ডগুলোর জোট ‘একর্ড অন ফায়ার এন্ড বিল্ডিং সেফটি ইন বাংলাদেশ’। একর্ডের প্রধান নিরাপত্তা পরিদর্শক ব্রাড লোয়েন জানিয়েছেন, প্রায় সব কারখানাতেই তারা নানা ধরণের নিরাপত্তা ঝুঁকি দেখতে পেয়েছেন। এর মধ্যে ছোট-খাট সমস্যা থেকে শুরু করে মারাত্মক ঝুঁকিও আছে। তিনি বলেন, একর্ডের টিম এখন বাংলাদেশের কারখানা মালিক, পোশাক ব্রান্ডগুলো এবং শ্রমিক নেতাদের সঙ্গে মিলে এসব সমস্যা দূর করার চেষ্টা করছে। আমস্টারডাম থেকে একর্ডের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, মোট এক হাজার একশো ছয়টি কারখানা তারা পরিদর্শন করে। এর মধ্যে চারশো কারখানার জন্য ইতোমধ্যে তারা একটি সংস্কার পরিকল্পনাও চূড়ান্ত করেছে।

এতে আরও বলা হয়, এসব কারখানা পরিদর্শনের সময় তারা প্রায় আশি হাজার সমস্যা বা ত্রুটি-বিচ্যূতি দেখতে পেয়েছে। এর মধ্যে কারখানা ভবনের ওপর ওজনের চাপ কমানোর মতো ব্যবস্থাগুলো ইতোমধ্যে বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। একর্ডের পরিদর্শকরা দেখতে পেয়েছেন, অনেক কারখানা ভবনে ‘অগ্নিনিরোধক দরোজা (ফায়ার ডোর) এবং স্বয়ংক্রিয় সতর্কীকরণ ব্যবস্থা (অটোমেটিক ফায়ার এলার্ম)নেই। আগুন লাগার পর যেরকম অগ্নি প্রতিরোধী নির্গমণ পথ থাকা দরকার সেই ব্যবস্থাও নেই। অনেক কারখানা ভবনের কাঠামো আরও শক্ত করার প্রয়োজন হবে। অন্তত ১৭ টি ভবনের কাঠামো প্রত্যাশিত নিরাপত্তা মানের নীচে রয়েছে।

এসব ভবনকে অনুপযোগী ঘোষণা করে সেগুলো খালি করার সুপারিশ করেছে একর্ডের পরিদর্শক টিম। এ সংক্রান্ত রিপোর্ট তারা সরকারের কাছেও জমা দিয়েছে। উল্লেখ্য ইউরোপীয় পোশাক ব্রান্ডগুলো বাংলাদেশের পোশাক কারখানাগুলোর নিরাপত্তা মান উন্নয়নের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয় রানা প্লাজা ট্র্র্যাজেডির পর। রানা প্লাজা ধসে এগারোশোর বেশি শ্রমিক নিহত হয়েছিল। এই ঘটনার পর বাংলাদেশের পোশাক শিল্পের নিরাপত্তা নিয়ে বিশ্ব জুড়ে উদ্বেগ তৈরি হয়।

'অরিজিৎ সিং লাইভ কনসার্ট' ঢাকায়

Details
বিনোদন ডেস্ক,ন্যাশনালনিউজ: অরিজিৎ সিং কনসার্টে সংগীত পরিবেশন করতে ঢাকায় আসছেন। আগামী ৫ ডিসেম্বর রাজধানীর যমুনা ফিউচার পার্কে গানে গানে সুরের মূর্ছনা ছড়াবেন তিনি। ওইদিন সকালে ঢাকায় এসে পৌঁছাবেন ২৭ বছর বয়সী এই তারকা। ‘অরিজিৎ সিং লাইভ ইন কনসার্ট’ শীর্ষক এই আয়োজন করেছে ইমেকার্স। প্রতিষ্ঠানটি যাত্রা শুরু করেছে চলতি বছরের ৩১ জানুয়ারি। এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাঈম আশরাফ রোমান  বলেন, ‘অরিজিৎ সিং একজন বাঙালি। আর ডিসেম্বর আমাদের বিজয়ের মাস। তাই ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য তিনি মঞ্চে আসার পর ১ মিনিট নীরবতা পালন কর‍া হবে। তারপর অরিজিৎ স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের একটি গানের অংশবিশেষ গেয়ে তার পরিবেশনা শুরু করবেন।’

তিনি আশা করছেন, দশ হাজার দর্শকের উপস্থিতিতে এ বছরের সবচেয়ে সফল কনসার্ট হবে এটি। কনসার্টটি উপভোগ করতে আগ্রহীদের  অনলাইনে টিকিট বরাদ্দ নিতে হবে। এখন প্রি-বুকিং চলছে। বিস্তারিত জানতে লগ-ইন করুন www.emakersbd.com/booking। আয়োজকরা জানান, অনুষ্ঠানটি কখনও টিভিতে প্রচার হবে না। কনসার্টে দুই-আড়াই ঘণ্টা গান গেয়ে শোনাবেন অরিজিৎ সিং। তার পরিবেশনায় নিশ্চিতভাবেই থাকবে ‘তুম হি হো’ (আশিকি ২), ‘মুসকুরানে’ (সিটি লাইটস), ‘কাভি জো বাদল বারসে’ (জ্যাকপট), ‘হামদর্দ’ (এক ভিলেন), ‘সামঝাওয়া’ (হাম্পটি শর্মা কি দুলহানিয়া), ‘বোঝেনা সে বোঝেনা’ ও ‘নারে না’ (বোঝেনা সে বোঝেনা), ‘মন মাঝি রে’ (বস), ‘কী করে তোকে বলবো’ (রংবাজ), ‘একা একেলা মন’ (চিরদিনই তুমি যে আমার ২), ‘পারবো না’ (বরবাদ), ‘সারাটাদিন’ ও ‘আমি তোমার কাছে’ (যোদ্ধা)। পাঁচ ঘণ্টার এই আয়োজনে অরিজিতের পরিবেশনার আগে থাকছে ইমন ও মেহজাবিনের নাচ এবং শিরোনামহীন ব্যান্ড, নির্ঝর ও ইমরানের গান। উপস্থাপনা করবেন ঢাক‍া এফএমের এহতেশাম।
   

... সকল বাংলা পত্রিকা ...  

   

ফটো গ্যালারি

   

Chairman: Dr.Farid Uddin (Chairman Bangladesh Hwman Rights Council), Editor: Main Uddin Bhuyan, 221 Lake Road, Lane 15, New DOHS, Mohakhali, Dhaka, 01672553366,01842553366, Email: nationalnewsbangladesh@gmail.com

   
© ALLROUNDER