Nationalnews.tv  

 

 
   

Facebook LikeBox  

   

বাংলা পত্রিকা  

 

 Advertise

Add

 

 

Walton At Every Home

Advertise

Advertise

 web:www.twoinsoft.com

Order Now:01817711619

websbd.net

   
Today193
Yesterday227
Total111885

Thursday, 24 April 2014 17:42

Who Is Online

Guests : 12 guests online Members : No members online
   

প্রচ্ছদ

দেশে ৪২ বছরে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা, ঢাকায় রেকর্ড ৫৪ বছরে

Details
 
ডেস্ক রিপোর্ট,ন্যাশনালনিউজ: গত ৪২ বছরে বৃহস্পতিবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল দেশে। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল যশোরে ৪২ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। অন্যদিকে বৃহস্পতিবার ঢাকায় গত ৫৪ বছরের তুলনায় রেকর্ড পরিমাণ তাপমাত্রা ছিল। রাজধানী ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৪০ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।
 
আবহাওয়া অধিদপ্তরের তথ্যমতে, ১৯৪১ সাল থেকে তাপমাত্রার ধারণ করছে। এর মধ্যে ১৯৭২ সালের ১৮ মে রাজশাহীতে ৪৫.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা ওঠে এবং ১৯৬০ সালের ৩০ এপ্রিল ঢাকায় তাপমাত্রা ছিল ৪২.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সে অনুযায়ী বৃহস্পতিবার দেশে গত ৪২ বছরের রেকর্ড পরিমাণ তাপমাত্রা এবং ঢাকায় ৫৪ বছরের রেকর্ড পরিমাণ তাপমাত্রা ছিল।

অক্সফোর্ড অভিধান আর ছাপা হবে না!

Details
 
আন্তর্জাতিক ডেস্ক,ন্যাশনালনিউজ: অক্সফোর্ড ইংরেজি অভিধানের পরবর্তী সংস্করণ আর বইয়ের তাকে স্থান নাও পেতে পারে। অভিধানটির প্রকাশক অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি প্রেস আশঙ্কা প্রকাশ করেছে যে, অভিধানটির পরবর্তী সংস্করণের আকার এত বড় হবে যে, তা ছাপানো সম্ভব না-ও হতে পারে। অক্সফোর্ড ইংরেজি অভিধানের (ওইডি) দ্বিতীয় সংস্করণ এখন বাজারে রয়েছে। ৭৫০ পাউন্ড দামের অভিধানটিতে তিন লাখেরও বেশি শব্দ রয়েছে। এই সংস্করণ ২০০০ সাল থেকে অনলাইনে রয়েছে। অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি প্রেস জানিয়েছে, তৃতীয় সংস্করণের আকার দ্বিতীয় সংস্করণের প্রায় দ্বিগুণ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এক মলাটে অভিধানটি প্রকাশ সম্ভব হবে না। আকারে এত বড় হতে পারে যে তা ৪০ খণ্ডে প্রকাশ করা লাগতে পারে। এ অবস্থায় অভিধানটি অনলাইনে প্রকাশ করলেই তা বাস্তবসম্মত ও ব্যবহারযোগ্য হবে বলে মনে করছে তারা।
 
ওইপিডির প্রধান সম্পাদক মাইকেল প্রফিট জানান, ইন্টারনেটের বিপুল তথ্যের কারণে তৃতীয় সংস্করণের কাজ ইতিমধ্যে অনেক পিছিয়ে গেছে। ১৯৯৪ সালে তাঁরা নতুন তৃতীয় সংস্করণের কাজে হাত দেন। কিন্তু এরই মধ্যে তাঁদের নির্ধারিত সময়ের চেয়ে প্রায় ২০ বছর বিলম্ব হয়ে গেছে। তিনি জানান, প্রতিবছরই নতুন নতুন শব্দ সৃষ্টি হচ্ছে। সেসব শব্দ অভিধানে সংযোজন বা বিয়োজনের জন্য পর্যবেক্ষণেও সময় যাচ্ছে। তৃতীয় সংস্করণের জন্য সব তথ্য সংগ্রহ ও বিন্যস্ত করে তা প্রকাশ করতে ২০৩৪ সাল লেগে যেতে পারে বলে জানান তিনি।

গাড়ি চালিয়ে শাস্তির মুখে সৌদি নারী

Details
 
আন্তর্জাতিক ডেস্ক,ন্যাশনালনিউজ: সৌদি আরবে মেয়েদের গাড়ি চালানো নিষিদ্ধ, তবে তা অঘোষিত। কিন্তু তা অগ্রাহ্য করার সাহস দেখিয়েছেন ২৩ বছরের  এক যুবতী। এই সৌদি নারী নিষেধাজ্ঞা ভেঙে গাড়ি চালাতে গিয়ে ধরা পড়ে কর্তৃপক্ষের কাছে। ঘটনাটি হল, বৃহস্পতিবার দেশের কাতিফ প্রদেশে স্বামীর গাড়ির স্টিয়ারিংয়ে হাত দিয়েছিলেন এই নারী। তবে পুলিশের চোখকে ফাঁকি দিতে পারেননি তিনি। ধরা পড়ার পর ওই দম্পতিকে আটক করে তাদের দিয়ে পুলিশ মুচলেকা লিখিয়ে নেয়, ভবিষ্যতে আর এমন হবে না মানে গাড়ির চালকের আসনে কোনোদিন বসবেন না স্ত্রী।

জামিনে তাদের ছেড়ে দেয়া হয়েছে। তবে স্ত্রীর অপরাধের সাজা হিসাবে স্বামীর ৯০০ সৌদি রিয়াল জরিমানা হয়েছে। স্ত্রীকে কেন তিনি গাড়ি চালাতে দিয়েছেন, এজন্য সাতদিন গাড়িটি বাজেয়াপ্তও করেছে কর্তৃপক্ষ। লাইসেন্স ছাড়া গাড়ি চালানোর দায়ে স্ত্রীর বিরুদ্ধে ট্রাফিক বিধি লঙ্ঘনের মামলা রুজু হয়েছে।

কঠিন লড়াইয়ে কংগ্রেস

Details
 
আন্তর্জাতিক ডেস্ক,ন্যাশনালনিউজ: লোকসভা নির্বাচনের ষষ্ঠ দফায় বৃহস্পতিবার ভারতজুড়ে ভোট হবে ১১৭ আসনে। ১৮ কোটি ভারতীয় তাঁদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। তবে পশ্চিমবঙ্গে লোকসভা নির্বাচনের দ্বিতীয় দফা এটি। এখানে উত্তরাঞ্চলের চার জেলার (উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুর, মালদহ ও মুর্শিদাবাদ) মোট ছয়টি আসনে ভোট গ্রহণ হবে বৃহস্পতিবার। দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাট ছাড়া বাকি পাঁচটি আসনই কংগ্রেসের দখলে। বামপন্থীরা গত লোকসভা নির্বাচনে একমাত্র বালুরঘাট আসনটিই কংগ্রেস ও তূণমূল কংগ্রেস জোটের বিরুদ্ধে কয়েক হাজার ভোটের ব্যবধানে জিতেছিল। তৃণমূল কংগ্রেসের কাছে দলীয় সংগঠন ও সমর্থকদের হারিয়ে জাতীয় কংগ্রেসের ক্রমাগত দুর্বল হওয়ার যে প্রবণতা দক্ষিণবঙ্গের সর্বত্র রয়েছে, এই জেলাগুলোতে তার বিপরীত চিত্র। বরং পশ্চিমবঙ্গে কংগ্রেসের সবচেয়ে বেশি শক্তি ছিল এদিকেই। আর এখানে কংগ্রেস এখন বামপন্থী, তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেপির ত্রিমুখী আক্রমণের মুখে প্রাণপণে অস্তিত্ব রক্ষার লড়াই করছে।

কংগ্রেসের জবরদস্ত নেতা, প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি এবং বিদায়ী ইউপিএ সরকারের রেল প্রতিমন্ত্রী অধীর চৌধুরী মুর্শিদাবাদ জেলারই মানুষ। তাঁর কেন্দ্র বহরমপুরে অবশ্য এই দফায় ভোট হচ্ছে না। সেখানে ভোট গ্রহণ হবে একেবারে শেষ দফায়, ১২ মে তারিখে। কদিন আগেই অধীর চৌধুরী বলেছিলেন, কংগ্রেস এ রাজ্যে মূলত গতবারের আসনগুলো রক্ষা করতেই লড়ছে। কিন্তু ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে, অধীর চৌধুরীর নিজের জেলা মুর্শিদাবাদেই এবার আসন হারাতে চলেছে তাঁর দল। রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়কে পর পর দুবার (২০০৪ এবং ২০০৯) মুর্শিদাবাদের জঙ্গিপুর থেকে অধীর চৌধুরীই লোকসভায় পাঠিয়েছিলেন নিজের সংগঠনের শক্তির জোরে। রাজনৈতিক জীবনের শেষ পর্যায়ে এসে প্রণব মুখোপাধ্যায় তাঁর হাত ধরেই প্রথম লোকসভায় যান। প্রণব রাষ্ট্রপতি হওয়ার পরে শূন্য আসনে তাঁরই ছেলে অভিজিৎ মুখোপাধ্যায় উপনির্বাচনে দাঁড়িয়ে সামান্য কয়েক হাজার ভোটে সিপিএম প্রার্থীকে হারান। এবার অভিজিৎ এতটাই কঠিন লড়াইয়ের সামনে।

বাংলায় প্রথম মোবাইল ব্যাংকিং সেবা চালু

Details
 
ডেস্ক রিপোর্ট,ন্যাশনালনিউজ: দেশে প্রথমবারের মতো সম্পূর্ণ বাংলায় মোবাইল ব্যাংকিং সেবা চালু করল আইএফআইসি ব্যাংক। ব্যাংক এখন আমার হাতে শীর্ষক স্লোগানে মোবাইল ব্যাংকিং শুরু করল ব্যাংকটি। সোমবার সেবাটির উদ্বোধন করেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকী। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মোবাইল ব্যাংকিং সেবা পরিচালনার ক্ষেত্রে ব্যাংক ও সেলফোন অপারেটরদের মধ্যে সমন্বয়হীনতা রয়েছে উল্লেখ করে সমন্বিত একটি নীতিমালার দাবি জানান ব্যাংকটির চেয়ারম্যান সালমান এফ রহমান। সঞ্চয়ী হিসাব খোলা থেকে শুরু করে নগদ টাকা লেনদেন, টাকা স্থানান্তর ও মোবাইল ব্যাংকিংয়ের সব সাধারণ সেবা পাওয়া যাবে আইএফআইসি মোবাইল ব্যাংকে। গ্রাহকরা বাংলা বা ইংরেজি যে কোনো ভাষায় এই সেবা পাবেন। ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকী বলেন, মোবাইল ব্যাংকিং সেবাকে এগিয়ে নিতে সেলফোন অপারেটরদের সহযোগিতা দরকার। ব্যাংক ও সেলফোন অপারেটরদের মধ্যে সমন্বয়ে বিটিআরসিকে উদ্যোগ নিতে হবে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমান বলেন, মোবাইল ব্যাংকিং ও আর্থিক অন্তর্ভুক্তির আওতায় খোলা ব্যাংক হিসাবগুলোকে ধরলে গ্রাহকের দিক দিয়ে প্রথম দিকে থাকবে বাংলাদেশ। বর্তমানে হিসাবের দিক দিয়ে দক্ষিণ এশিয়ায় সবচেয়ে উপরে রয়েছে শ্রীলংকা। ড. আতিউর আরও বলেন, বর্তমানে মোবাইল ব্যাংকিং সেবার চার্জের ভিন্নতা দেখা যাচ্ছে। যে কারণে সেবাটির প্রসারে ব্যত্যয় ঘটছে। এ বিষয়ে টেলিকমিউনিকেশন ও ব্যাংকগুলোর জন্য একটি সমন্বিত নীতিমালা প্রয়োজন। অনুষ্ঠানের শুরুতে ব্যাংকের চেয়ারম্যান সালমান এফ রহমান বলেন, মূলত দুটি লক্ষ্য সামনে রেখে আইএফআইসি ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং চালু করেছে। একটি লক্ষ্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ ও অন্যটি গভর্নর ড. আতিউর রহমানের আর্থিক অন্তর্ভুক্তি কর্মসূচি বাস্তবায়নে সহযোগিতা করা।অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের সদস্য মোহাম্মদ লুৎফর রহমান, ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাহ আলম সারওয়ার প্রমুখ।

৮ হজ এজেন্সির লাইসেন্স বাতিল

Details
 
ডেস্ক রিপোর্ট,ন্যাশনালনিউজ: হজের সময় বিভিন্ন অনিয়মের দায়ে আটটি হজ এজেন্সির লাইসেন্স বাতিল করেছে সরকার। এছাড়া স্থগিত করা হয়েছে ৪৩টি এজেন্সির লাইসেন্স। বাতিল, স্থগিত ও জরিমানাসহ মোট ২০৮টি হজ এজেন্সির বিরুদ্ধে ব্যাবস্থা নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিব চৌধুরী মো. বাবুল হাসান। তিনি জানান, এসব হজ এজেন্সির অনিয়ম তদন্তে ধর্ম মন্ত্রণালয় গঠিত তদন্ত কমিটি অভিযোগের সত্যতা পাওয়ার পর অপরাধের ধরন অনুযায়ী বিভিন্ন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে সচিব বলেন, “২১৭টি হজ এজন্সির বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছিল।” অপরাধের ধরন অনুয়ায়ী সর্বোচ্চ পাঁচ লাখ টাকা করে ৫টি, চার লাখ টাকা করে ৫টি, তিন লাখ টাকা করে ১৭টি, আড়াই লাখ টাকা করে ৯টি, দেড় লাখ টাকা করে ১২১টি হজ এজেন্সিকে জরিমানা করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।
২০১৩ সালে ২৬২ জন হজ যাত্রী হজ শেষে দেশে ফিরে আসেনি জানিয়ে সচিব বলেন, ‘কেসকেড ট্রাবেল অ্যান্ড টুরস’ নামে একটি এজেন্সির পাঠানো ৯১ জন হজযাত্রী ফিরে আসেনি। তাই তাদের হজ লাইসেন্স বাতিলসহ মোট ১ কোটি ৮২ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া ‘জানুস ট্রাবেল অ্যান্ড টুরসের’ ৫২ জন হজযাত্রা ফিরে আসেনি। তাই তাদের লাইসেন্স বাতিলসহ ১ কোটি চার লাখ টাকা জারিমানা করা হয়েছে। ‘দা ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ট্রাবেলসের ৭৪ জন হজযাত্রী হজে গিয়ে ফিরে না আসায় প্রতিষ্ঠানটির হজ লাইসেন্স বাতিলসহ এক কোটি ৪৮ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। গত বছর হজ করতে ৮৭ হাজার ৮৫৪ জন সৌদি আরব যান। ৬২৮টি হজ এজেন্সির মাধ্যমে বেসরকারিভাবে তারা হজ পালন করেন।

২০১৩ সালের হজ মৌসুমে এজেন্সিগুলোর বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ তদন্তে এ সংক্রান্ত কমিটি গত ৪ থেকে ৬ এপ্রিল অভিযুক্ত হজ এজেন্সিগুলোকে শুনানিতে ডাকে। এর মধ্যে ৪ এপ্রিল ৬৫টি, ৫ এপ্রিল ৬১টি এবং ৬ এপ্রিল ৬৭টি এজেন্সি তদন্ত কমিটির শুনানিতে অংশ নেয়। সচিব বলেন, “অভিযুক্ত এজেন্সিগুলোর বিরুদ্ধে হজের নামে মানুষ পাচার, প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী হাজিদের বাড়িতে না রাখা, যাতায়াতের জন্য গাড়ির ব্যবস্থা না করা, একই কক্ষে গাদাগাদি করে অবস্থান, পর্যাপ্ত গাইড না রাখা এবং নিম্নমানের খাবার পরিবেশনসহ বিভিন্ন অভিযোগ রয়েছে।”

কাজে ফিরেছেন মিটফোর্ডের ধর্মঘটীরাও

Details
 
ডেস্ক রিপোর্ট,ন্যাশনালনিউজ: মামলা প্রত্যাহারের আশ্বাস পেয়ে কর্মবিরতি প্রত্যাহার করা হয়েছে বলে বুধবার সন্ধ্যায় জানিয়েছেন শিক্ষানবিশ চিকিৎসকদের মুখপাত্র ও কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি সোয়াইবুল ইসলাম সোয়েব। তিনি বলেন, বিএমএ মহাসচিব ইকবাল আর্সলান ও স্থানীয় সংসদ সদস্য মামলা প্রত্যাহারে পদক্ষেপ নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন।  “তার পরিপ্রেক্ষিতে আমরা এখন থেকে কাজে যোগদান করছি।” ধর্মঘট প্রত্যাহার হলেও মানববন্ধনসহ বিভিন্ন কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়া হবে বলে জানান সোয়েব। সাংবাদিকদের মারধরের অভিযোগ এনে দুদিন আগে একুশে টেলিভিশন কর্তৃপক্ষ যে পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা করে, তার একজন হলেন সোয়েব।সোমবার ওই মামলার পরপরই মিটফোর্ডের দুই শতাধিক শিক্ষানবিশ চিকিৎসক কর্মবিরতি শুরু করেন, যাতে দুর্ভোগে পড়েন রোগীরা।  সাংবাদিকদের সঙ্গে সংঘাতের ঘটনায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালেও ওই দিন থেকে কর্মবিরতি শুরু করেছিলেন শিক্ষানবিশ চিকিৎসকরা। তবে তারা মঙ্গলবারই কাজে ফিরেছেন।

দুটি হাসপাতালে চিকিৎসকরা ধর্মঘট শুরুর পর কড়া হুঁশিয়ারি দেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। ধর্মঘটীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার কথাও বলেন তিনি। স্যার সলিমুল্লাহ ও রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দুটি ঘটনার তদন্তে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ইতোমধ্যে দুটি তদন্ত কমিটি করেছে। কমিটি দুটিকে এক সপ্তাহের মধ্যে প্রতিবেদন দিতেও বলা হয়েছে।  গত শনিবার সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে একদল সাংবাদিক মিটফোর্ড হাসপাতালের শিক্ষানবিশ চিকিৎসকদের হামলার শিকার হন বলে একুশে টেলিভিশনের অভিযোগ। ওই ঘটনায় সোমবার ঢাকার হাকিম আদালতে মামলা করেন একুশে টেলিভিশনের পরিচালক মো. জাহিদুল ইসলাম। এতে হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. জাকির হাসান, শিক্ষানবিশ চিকিৎসক শাহিন, শাওন, সোয়েব ও নাইমকে আসামি করা হয়।  মামলার বাদীর জবানবন্দি নিয়ে মহানগর হাকিম কেশব রায় চৌধুরী ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশকে (ডিবি) ১১ মে তদন্ত প্রতিবেদন দিতে বলেছেন। এদিকে একুশে টিভির ওই সাংবাদিকদের বিরুদ্ধেও পাল্টা মামলা করার পরিকল্পনা রয়েছে বলে মিটফোর্ড হাসপাতালের উপপরিচালক আবু ইউসুফ বুধবার সকালে জানান।

নিউইয়র্কে ২০ বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠান পুড়ে ছাই, আহত ৩

Details
 
প্রবাস ডেস্ক,ন্যাশনালনিউজ: নিউইয়র্কে বাংলাদেশি অধ্যুষিত জ্যাকসন হাইটসে সোমবার (যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় অনুযায়ী) ভয়াবহ এক আগুনে পুড়ে গেছে বাংলাদেশি মালিকানাধীন ২০টি প্রতিষ্ঠান। স্থানীয় সময় বিকেল পৌনে ৫টার দিকে ব্রুজম বিল্ডিংয়ের তিনতলায় একটি নেপালি ল’ফার্ম অফিস থেকে আগুনের সূত্রপাত হয় বলে ধারণা করা হচ্ছে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের বিশটি ইউনিট ১০ মিনিটের মধ্যে ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করে। আগুন লাগার সময় ভবনে থাকা লোকজনের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। আশেপাশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ করে দেয়া হয়। উৎসুক মানুষের ভিড় সামলাতে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসকে বেশ বেগ পেতে হয়। এ সময় বন্ধ করে দেয়া হয় ৩৭ এভিনিউয়ের ৭৩ স্ট্রিট থেকে ৭৬ স্ট্রিট পর্যন্ত রাস্তা। এতে ভোগান্তিতে পড়েন হাজারো মানুষ। আশপাশের রাস্তাগুলোতে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়।

প্রায় তিনঘণ্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। এ সময় ধোঁয়ায় অন্ধকার হয়ে যায় পুরো এলাকা। ব্রুজম বিল্ডিংটিতে ২০টি বাংলাদেশি মালিকানাধীন ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান ছিল। সবগুলো প্রতিষ্ঠানই পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত টেলিলিংক নামের প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার মাসুম মোহাম্মদ মহসিন বলেন, ভবনটিতে তার চারটি প্রতিষ্ঠান রয়েছে। সবগুলো অফিসেই পুড়ে গেছে বলে তিনি জানতে পেরেছেন। এটর্নি মাহফুজুর রহমান জানান, আগুন লাগার খবর শুনে তিনি দ্রুত অফিসে এসে দেখেন সব কিছু পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। নিরাপত্তা কর্মীদের বাধার কারণে তিনি ভেতরেও ঢুকতে পারেননি। আগুনে প্রাথমিকভাবে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানা যায়নি। এ ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। ভবনের ইএসএল প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে কর্মরত সীমা বলেন, ফায়ার অ্যালার্ম বাজার পর সবাই বেরিয়ে যায়। আমার জানা মতে, কেউ আটকেও পড়েনি এবং কেউ হতাহতও হয়নি।

চিঠি আসতে ৪৫ বছর!

Details

চিঠি আসতে ৪৫ বছর!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক,ন্যাশনালনিউজ: কানাডার এক মহিলার কাছে এক চিঠি আসতে  ৪৫ বছর সময় লেগেছে। অর্থাৎ ওই মহিলার চিঠির বাক্সে রহস্যজনকভাবে ৪৫ বছর আগে পাঠানো একটি চিঠি পাওয়া গেছে। কয়েক দশক আগে তার বোন তার কাছে চিঠিটি পাঠিয়েছিলেন। গতকাল মঙ্গলবার কানাডার সংবাদ মাধ্যম এ কথা জানায়। এনী টিঙ্গলে নামের ওই মহিলা সরকারি বেতার সিবিসিকে জানান, ১৯৬৯ সালে তার বোন ৬ সেন্টের একটি স্ট্যাম্পের সঙ্গে ডাকযোগে চিঠিটি পাঠায়। তখন তার বোনের বয়স ছিল ৯ বছর।
প্লাস্টিকের একটি মোড়কে মুড়ে চিঠিটি পাঠানো হয়। এর সঙ্গে কানাডা ডাক বিভাগ একটি নোট পাঠায়। এতে খাম ও চিঠি নষ্ট হয়ে যাবার জন্য দুঃখ প্রকাশ করা হয়। তবে চিঠিটি বিলম্বে পাঠানোর জন্য দুঃখ প্রকাশ করা হয়নি। নোটটিতে লেখা ছিল, প্রিয় গ্রাহক, আপনার চিঠিটি নষ্ট হয়ে যাওয়ায় আমরা আন্তরিকভাবে দুঃখিত। ডাক বাক্সে এটিকে আমরা এ অবস্থায়ই পেয়েছি।
গ্রাহক বলেন, খামটিতে মি. ও মিসেস আরডি. টিঙ্গেল -এই ঠিকানা লেখা ছিল। এতে শুধু মাত্র একটি রাস্তার নাম ও ভুল বাড়ির নম্বর লেখা ছিল। লেখব্রিজ নগরী থেকে চিঠিটি পাঠানো হয় বলেও জানা গেছে।

প্রথম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য এলো 'বিজয় প্রাথমিক শিক্ষা ১'

Details
 
তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক,ন্যাশনালনিউজ: জাতীয় পাঠক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের পাঠক্রম অনুযায়ী প্রথম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য 'বিজয় প্রাথমিক শিক্ষা ১' নামের শিক্ষামূলক সফটওয়্যার বাজারে এনেছে বিজয় ডিজিটাল।
সফটওয়্যারটিতে বাংলা, ইংরেজি ও গণিত বইয়ের বিভিন্ন বিষয় এনিমেশন, ভিডিও ও শব্দসহ শিশুদের উপযোগী করে তৈরি করা হয়েছে। ফলে শিক্ষার্থীরা খেলার ছলে শিখতে পারবে। বিসিএস কম্পিউটার সিটি, বিসিএস ল্যাপটপ বাজারসহ বিভিন্ন জায়গায় পাওয়া যাবে এটি। দাম ২০০ টাকা। এর আগে নার্সারি ও কেজি শ্রেণির জন্য 'বিজয় শিশু শিক্ষা ১' ও 'বিজয় শিশু শিক্ষা ২' নামে দুটি শিক্ষামূলক সফটওয়্যার বাজারে আনে বিজয় ডিজিটাল।

সবচেয়ে গরিব প্রীতি!

Details
 
বিনোদন ডেস্ক,ন্যাশনালনিউজ: শিরোনাম দেখেই হয়তো যে কেউ চমকে যাবেন। এক সময়ের বলিউড দাপানো অভিনেত্রী প্রীতি জিনতা আবার গরিব হন কিভাবে? তবে প্রায় ১৮৩ কোটি রুপি সম্পদের মালিক প্রীতি কিন্তু ধনীদের কাতারেই সবচেয়ে কম বিত্তবান হিসেবে চিহ্নিত হচ্ছেন। চলতি ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের(আইপিএল)ফ্রাঞ্চাইজি মালিকদের মধ্যে কার সম্পদ কতো এ সম্পর্কিত এক প্রতিবেদনে প্রীতির দুরবস্থা(!) প্রকাশ পায়। কেননা প্রীতি জিনতার এই ১৮৩ কোটি রুপির সম্পদ মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের কর্ণধার মুকেশ আম্বানির সম্পত্তির মাত্র ০.১৪ শতাংশ হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে। বিশ্বজুড়ে বিস্তৃত রিলায়েন্স গ্রুপের মালিক মুকেশ আম্বানি হচ্ছেন শুধু ভারত নয়, বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ সম্পদশালী মানুষদের একজন। তার সমুদয় সম্পত্তির আনুমানিক মূল্য হচ্ছে ২১.২ বিলিয়ন ডলার যা ভারতীয় রুপিতে যার মূল্যমান ১.২৯ লাখ কোটি!

সানরাইজার্স হায়দেরাবাদের মালিক কালানিথি মরনের সম্পদের চেয়েও আম্বানি দশ গুণ বেশী সম্পদের অধিকারী। সানরাইজার্স মালিকের মোট সম্পত্তির মূল্য হচ্ছে ২.২ বিলিয়ন ডলার। আইপিএল ফাঞ্চাইজি মালিকদের তালিকায় অবশ্য কালানিথি মরন দ্বিতীয় স্থানে অবস্থান করছেন। রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের মালিক এবং ইউবি গ্রুপের চেয়ারম্যান বিজয় মালিয়া রয়েছেন এ তালিকার তৃতীয় স্থানে। তার সমুদয় সম্পত্তির মূল্যমান আনুমানিক ৬৪০ মিলিয়ন ডলার। রসিকজনরা মনে করছেন, প্রীতি এখন নিজের আর্থিক দৈন্যদশার জন্য কপাল চাপড়াতেই পারেন।
   

ফটো গ্যালারি

1
1185563_676560745742729_1914898164_n
392842_509762219083082_75092400_n
vote-0020140331162447
   

Chairman: D.Farid Uddin Farid, (Chairman Bangladesh Hwman Rights Council), Editor: Main Uddin Bhuyan,Legal adviser Advocate kazi Rubayad hasan Sayeem,91/2,Wireless,Moghbazar,01842553366,Email: nationalnewsbangladesh@gmail.com

   
© ALLROUNDER